ডিসেম্বর ৯, ২০১৯ ৭:৪০ অপরাহ্ণ
সর্বশেষ
ত্বকের যতেœ গ্রিন টি

ত্বকের যতেœ গ্রিন টি

লাইফস্টাইল ডেস্ক: বলা হয় প্রতিদিন এক কাপ সবুজ চা পান হৃদরোগীদের ওষুধ সেবনের সমান উপকার দেয়। কেবল পানীয় হিসেবে নয়,  সবুজ চায়ের ব্যবহার রয়েছে রূপচর্চার উপকরণ হিসেবেও। এর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট শরীরের জন্য যেমন উপকারী, তেমনি ত্বকের ব্রণ রোধ থেকে শুরু করে উজ্জ্বলতাও বৃদ্ধি করে। রূপচর্চার উপকরণ হিসেবে সবুজ চায়ের ভিন্ন ভিন্ন ব্যবহারÑ নিয়মিত সবুজ চা পানের অভ্যাস যাদের রয়েছে, তাদের জন্য এ পদ্ধতিটি সহজই বলা যায়। চা পানের পর ব্যবহৃত টি ব্যাগটি ফেলে না দিয়ে একটি পাত্রে রাখুন এবং সামান্য মধু মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। তবে ফেস প্যাকটি ব্যবহারের আগে ভালো করে পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। এর পর প্যাকটি মুখে লাগান। ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। একটি পাত্রে সবুজ চায়ের পাতি জাল দিয়ে ফুটিয়ে নিন। পাতা রঙ ছড়ালে পানি ঠা-া হওয়ার জন্য অপেক্ষা করুন। এর পর বেসিনে গিয়ে মুখের সবটা জায়গায় এ পানির ছিটা দিন। সবশেষে ঠা-া পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। অল্প সময়ের মধ্যে আপনাকে কোনো পার্টি বা অনুষ্ঠানে যোগ দিতে হবে। এদিকে চেহারায় শতভাগ ক্লান্তির ছাপ। এক কাপ গরম পানিতে একটি গ্রিন টি ব্যাগ ছেড়ে দিয়ে ঈষৎ উঞ্চ হতে দিন। এর পর কিছু পানি ঝরিয়ে উষ্ণ টি ব্যাগটি মুখে ম্যাসাজ করুন। ঠা-া হওয়া পর্যন্ত ম্যাসাজ করতে থাকুন। আপনার সকালের ক্লিনজারের জন্য সবুজ চা হতে পারে চমৎকার একটি পদ্ধতি। টি ব্যাগ থেকে চায়ের পাতি একটি কাপে গরম পানিতে ঢালুন। এর পর বাজার থেকে কেনা যে কোনো ক্লিনজারের সঙ্গে এটি মিশিয়ে নিন। ৫ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখুন। পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। একটি বড় পাত্রে গরম পানি নিন। এতে একটি টি ব্যাগ পরিমাণ সবুজ চা মেশান। এর পর একটি টাওয়েল দিয়ে মাথা আবৃত করে গরম পানির ভাপ নিন। তবে সাবধান পাত্রের খুব কাছে মুখ যেন না আসে! এভাবে ৫ মিনিট গরম ভাপ নিলেই হবে। গোলাপজলের সঙ্গে সবুজ চায়ের মিশ্রণ ত্বকের জন্য উপকারী। এর জন্য বাজার থেকে কেনা বা ঘরে তৈরি গোলাপজল ব্যবহার করতে পারেন। প্রথমে একটি পাত্রে গোলাপজল নিয়ে তা গরম করুন। এর পর একটি সবুজ চায়ের টি ব্যাগ ফুটন্ত পানিতে ছেড়ে দিন। তিন অথবা ৫ মিনিট এভাবে রাখুন। পরে একটি স্প্রে বোতল বা সাধারণ কোনো বোতলে মিশ্রণটি ভরে রেফ্রিজারেটরে ঠা-া করতে দিন। রাতে এ মিশ্রণ আপনি টোনার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধির পাশাপাশি এটি ত্বকের বয়স লুকাতেও সাহায্য করবে। বিশেষ করে চোখের নিচে কালো দাগ দূর করতে জুড়ি নেই এর। একটি পাত্রে সবুজ চা মিশ্রিত পানি নিন, ঠা-া করুন। এর মধ্যে কয়েকটি কটন বল রেখে ঢাকনা দিয়ে ভালোমতো আটকে ঠা-া ও অন্ধকার জায়গায় পাত্রটি রাখুন। প্রতিদিন দুবার করে কটন বল দিয়ে মুখ ম্যাসাজ করুন। এটি ত্বকের আর্দ্রতা বৃদ্ধির পাশাপাশি লোমকূপ থেকে ময়লা পরিষ্কার করে থাকে। গরম পানিতে সবুজ চায়ের একটি টি ব্যাগ কিছুক্ষণ রেখে উঠিয়ে নিন। কিছুটা ঠা-া হলে টি ব্যাগ থেকে চায়ের পাতি বের করে মুখে লাগান। খেয়াল রাখবেন চায়ের পাতির উষ্ণতা যেন আপনার ত্বকের সহনীয় মাত্রার মধ্যে থাকে। উপকরণটি মুখে লাগানোর ৫ মিনিট পর এর ওপর দইয়ের প্রলেপ লাগান। মুখের সবটা জায়গায় এটা ম্যাসাজ করুন। এভাবে ৫ কিংবা ১০ মিনিট রেখে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Scroll To Top